ফলাফলবিসিএস
ট্রেন্ডিং

bpsc.gov.bd তম বিসিএস MCQ পরিক্ষার ফলাফল ২০২২

৪৪ তম বিসিএস MCQ ফলাফল ২০২২ প্রকাশিত হয়েছে।৪৪ তম বিসিএস MCQ ফলাফল দেখা যাবে বিপিএসসি এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে। যারা ৪৪ তম বিসিএস ফলাফল ২০২২ জানতে চান তারা বিপিএসসি এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট এবং আমাদের ওয়েবসাইট থেকে জানতে পারবেন। ৪৪ তম বিসিএস ফলাফল ২০২২ জানা যাবে www.bpsc.gov.bd থেকে জানা যাবে । ৪৪ তম বিসিএস ফলাফল ২০২২ চেক করতে প্রয়োজন হবে একটি স্মারটফোন অথবা কম্পিউটারের। এস এম এস এবং পিডিএফ আকারে দেখা যাবে ৪৪ তম বিসিএস MCQ ফলাফল ২০২২। নিচের অংশে ৪৪ তম বিসিএস MCQ ফলাফল ২০২২ পিডিএফ ফাইল সংযুক্ত করা আছে সেখানে থেকে ৪৪ তম বিসিএস MCQ ফলাফল ২০২২ যারা দেখতে চান তারা পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করে ফলাফল দেখে নিতে পারবেন। এছাড়া এসএমএস কিংবা ব্রাউজার এর মাধ্যমে কিভাবে ৪৪ তম বিসিএস ফলাফল ২০২২ দেখতে হবে সে পদ্ধতি বর্ণনা করা আছে নিচের অংশে। 

 

৪৪ তম বিসিএস ২০২২

১৯৭১ সালে বাংলাদেশের জন্ম হলেও বিসিএস বাংলাদেশের জন্মের আগেই। 1858 সালে ব্রিটিশ সাম্রাজ্যই প্রথম এই সিভিল সার্ভিস তৈরি করে। কিন্তু সে সময় সিভিল সার্ভিস ইম্পেরিয়াল সিভিল সার্ভিস নামে পরিচিত ছিল। বাংলাদেশ পাকিস্তান যুদ্ধের পর, ইম্পেরিয়াল সিভিল সার্ভিস বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস বা বিসিএস-এ পরিবর্তিত হয়। বাংলাদেশের চাকরির ক্ষেত্রে বিসিএস ছিল বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় চাকরি পরীক্ষার ছাড়পত্রগুলির মধ্যে একটি। বিসিএস একটি সরকারি চাকরির পরীক্ষার ছাড়পত্র। প্রতি বছর বাংলাদেশে এই পরীক্ষা হতো। প্রতি বছর অনেক স্নাতক ছাত্র সরকারী জন্য এই পরীক্ষা দেয়. কাজ কিন্তু আসন সীমিত হওয়ায় অনেক শিক্ষার্থী এ চাকরির জন্য নির্বাচন করতে পারছেন না। বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশন এই পরীক্ষার প্রধান। তারা এই পরীক্ষার নিয়ন্ত্রক সংস্থা
বিসিএস পদ
বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস বিসিএসে এখানে ২৬টি পদ রয়েছে। এখানে দুই ধরনের কাজ আছে। একটি সাধারণ ক্যাডার এবং অন্যটি পেশাদার ক্যাডার। উভয় চাকরির ধরন সরকারী সেক্টরে ভাল। সাধারণ এবং পেশাদার ক্যাডার বাংলাদেশের সবচেয়ে মূল্যবান চাকরি। অনেক শিক্ষার্থী এই চাকরির স্বপ্ন দেখে কিন্তু সীমিত শিক্ষার্থীরা এই চাকরিটি বেছে নেয়।

 

৪৪ তম বিসিএস MCQ রেজাল্ট ২০২২

বিসিএস ফলাফল তিনভাবে পাওয়া যায়। নিচের অংশ থেকে আপনি তিনটি উপায় সম্পর্কে জানতে পারবেন।

অনলাইনে ৪৪ তম বিসিএস MCQ ফলাফল চেক ২০২২

১ম পদ্ধতি

  • ব্রাউজার খুলুন এবং www.bpsc.gov.bd টাইপ করুন।
  • অনলাইন নিবন্ধন / ফলাফল বিভাগ থেকে বিসিএস পরীক্ষার বিকল্পটি নির্বাচন করুন
  • সেখান থেকে ৪৩তম বিসিএস MCQতে ক্লিক করলে একটি পিডিএফ ফাইল পাওয়া যাবে।
  • পিডিএফ ফাইলটি ডাউনলোড করুন এবং আপনার রেজিস্ট্রেশন নম্বর অনুযায়ী পিডিএফ থেকে ফলাফল খুঁজুন

২য় পদ্ধতি 

  • যেকোনো ব্রাউজার খুলুন এবং 103.230.104.194 টাইপ করুন
  • সেখান থেকে বিসিএস পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে
  • এখন আপনি বিসিএস MCQ পরীক্ষার ফলাফলের বিজ্ঞপ্তি দেখতে পারেন
  • ফলাফল ডাউনলোড করুন এবং আপনার ফলাফল দেখুন

 

এসএমএস এর মাধ্যমে ৪৪ তম বিসিএস MCQ ফলাফল ২০২২

ফলাফলের বিকল্প পেতে আপনি SMS এর মাধ্যমে পরীক্ষা করতে পারেন। এসএমএস করেও ফল জানতে পারবেন। নির্দেশাবলী অনুসরণ করুন
লিখুন

PSC <SPACE> 44 <SPACE> আপনার রেজিস্ট্রেশন নম্বর এবং 16222 এ পাঠিয়ে দিন

 

এভাবেই আপনি সহজেই আপনার ফলাফল পাবেন। তবে আপনি আমাদের ওয়েবসাইট থেকেও আপনার ফলাফল দেখতে পারেন

 

৪৪ তম বিসিএস MCQ ফলাফল পিডিএফ ডাউনলোড ২০২২

৪৪ তম বিসিএস প্রিলি পরিক্ষার ফলাফল PDF ডাউনলোড করা যাবে এখানে থেকে। নিচের পিডিএফ ডানলোড বোতামে ক্লিক করে খুব সহজেই ডাউনলোড করে নিতে পারবেন ৪৪ তম বিসিএস MCQ ফলাফল ২০২২পিডিএফ ডাউনলোড করা যাবে । 

PDF Download

সাধারণ ক্যাডার

1. বিসিএস (পররাষ্ট্র বিষয়ক)
2. বিসিএস (প্রশাসন)
3. বিসিএস (অডিট ও অ্যাকাউন্টস)
4. বিসিএস (শুল্ক ও আবগারি)
5. বিসিএস (পুলিশ)
6. বিসিএস (কর)
7. বিসিএস (রেলওয়ে পরিবহন ও বাণিজ্যিক)
8. বিসিএস (পরিবার পরিকল্পনা)
9. বিসিএস (ডাক)
10. বিসিএস (আনসার)
11. বিসিএস (খাদ্য)
12.BCS (বাণিজ্য)
13.বিসিএস (তথ্য)
14.BCS (সমবায়)

পেশাদার ক্যাডার

1. BCS (সাধারণ শিক্ষা)
2. BCS (কারিগরি শিক্ষা)
3. BCS (জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল)
4. BCS (গণপূর্ত)
5. BCS (রেলওয়ে: ইঞ্জিনিয়ারিং)
6. BCS (সড়ক ও মহাসড়ক)
7. BCS (স্বাস্থ্য)
8. BCS (কৃষি)
9. BCS (বন)
10. BCS (মৎস্য)
11. BCS (প্রাণীসম্পদ)
12. BCS (পরিসংখ্যান)

 

৪৪ তম বিসিএস MCQ পরীক্ষার তারিখ ২০২২

বিসিএস পরীক্ষা 27 মে ২০২২ শুক্রবার অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষা শুরু হবে সকাল ১০টায়। আপনি যেখানে স্থান নির্বাচন করবেন সেখানে পরীক্ষার কেন্দ্রটি নির্বাচন করা হয়েছে। পরীক্ষার আগে আপনাকে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে হবে। আপনি আমাদের ওয়েবসাইট থেকে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারেন।
বিসিএস MCQ পরীক্ষার নম্বর বণ্টন
বিসিএস পরীক্ষার তিনটি ধাপ রয়েছে। প্রথম পর্বটি একটি প্রাথমিক পরীক্ষা প্রক্রিয়া। MCQ পরীক্ষায় 2 ঘন্টার 200 নম্বরের পরীক্ষা থাকে। এখানে নেতিবাচক চিহ্ন আছে। প্রতিটি ভুল উত্তর আপনার 0.5 নম্বর থেকে কাটা হয়। তাই এটা নিয়ে সতর্ক থাকুন। এখানে মার্ক বন্টন
1) বাংলা ভাষা ও সাহিত্য – 35
2) ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য – 35
3) বাংলাদেশ অ্যাফেয়ার্স – 30
4) আন্তর্জাতিক বিষয়াবলী – 20
5) ভূগোল, পরিবেশ এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা – 10
6) সাধারণ বিজ্ঞান – 15
6) কম্পিউটার এবং তথ্য প্রযুক্তি – 15
6) গাণিতিক যুক্তি – 15
9) মানসিক দক্ষতা – 15টি
10) নৈতিকতা, মূল্যবোধ এবং সুশাসন – 10

লিখিত পরীক্ষা

MCQ পরীক্ষা থেকে নির্বাচিত হওয়ার পর আপনাকে অবশ্যই লিখিত পরীক্ষায় বসতে হবে এই বিসিএসের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা এবং এই বিভাগে সবচেয়ে কঠিন পরীক্ষা। এখানে মার্ক বন্টন
সাধারণ ক্যাডার
বাংলা- 200
ইংরেজি – 200
বাংলাদেশ বিষয়াবলী – 200
আন্তর্জাতিক বিষয়াবলী – 100টি
গাণিতিক ও মানসিক দক্ষতা – 100টি
সাধারণ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি- 100টি

প্রফেশনাল ক্যাডার

1) বাংলা -100
2) ইংরেজি – 200
3) বাংলাদেশ অ্যাফেয়ার্স – 200
4) আন্তর্জাতিক বিষয়াবলী – 100টি
5) গাণিতিক যুক্তি এবং মানসিক দক্ষতা – 100
6) পোস্ট-সম্পর্কিত সমস্যা –  200

 

বিসিএস ভাইভা

প্রাথমিক ও লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর আপনাকে অবশ্যই এই পরীক্ষার শেষ ধাপের মুখোমুখি হতে হবে। এই ভাইভা. সরকারের কিছু উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা এই ভাইভা গ্রহণ করবেন তাই আপনাকে অবশ্যই এটিকে খুব পেশাদারভাবে যোগ্যতা অর্জন করতে হবে। আপনি ভুল করতে পারবেন না। তারা আপনাকে প্রতিটি দিক পর্যবেক্ষণ করে। তাই এই ধরনের কঠিন ভাইভা আপনার জীবনে হবে

 

 

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button