বিবিধ
ট্রেন্ডিং

বয়স্ক ভাতা অনলাইন আবেদন ২০২২ । বয়স্ক ভাতা আবেদনের নিয়ম – সমাজসেবা অধিদপ্তর

সমাজসেবা অধিদপ্তর এর বয়স্কভাতার আবেদন ২০২২ এর প্রক্রিয়া এখানে দেয়া আছে। যারা অনলাইনে বয়স্কভাতার আবেদন করতে ইচ্ছুক তারা এখানে থেকে বয়স্ক ভাতার আবেদন করতে পারবেন। বয়স্ক ভাতার আবেদন করার নিয়ম সকলের জানা থাকা প্রয়োজন । বয়স্ক ভাতার বিজ্ঞপ্তি অথবা নোটিশ এখানে প্রকাশিত হয়। এছাড়া কিভাবে বয়স্ক ভাতার আবেদন করতে হয় তা জানতে পারবেন এই নিবন্ধ থেকে। ২০২২ সালের নতুন বিজ্ঞপ্তি অনুসারে বয়স্কভাতার জন্য আবেদন করতে হয় অনলাইনে। প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ অনলাইন হওয়ায় অনেকেই জানেন না কিভাবে বয়স্ক ভাতার আবেদন করবেন। নিচের নিয়ম অনুসারে খুব সহজেই বয়স্কভাতার আবেদন করতে পারবেন।

বয়স্ক ভাতার জন্য কারা আবেদন করতে পারবেন এবং কারা পারবেন না তা জেনে নেয়া অনেক জরুরি। সাধারন্ত ৬০ বছরের উপরে যাদের বয়স তারা বয়স্ক হিসেবে গন্য হয়। বাংলাদেশ সরকার বয়স্ক নাগরিকদের বয়স্কভাতা প্রদান করে।বয়স্ক ভাতার আবেদনপত্র সংগ্রহ এবং সম্পূর্ণ আবেদন প্রক্রিয়া এখানে দেয়া হলো। আবেদন করা থেকে শুরু করে টাকা উত্তোলন পর্যন্ত যাবতীয় নিয়ম এখানে বিশ্লেষণ করা হয়েছে। প্রক্রিয়াটি কিছুটা জটিল হলেও আমরা সেটিকে সহজ ভাবে উপস্থাপনের চেস্টা করেছি।

বয়স্ক ভাতা অনলাইন আবেদন প্রক্রিয়া ২০২২

বয়স্কভাতা অনলাইনে আবেদনের জন্য আপনাকে নিচের ধাপগুলো অনুসরন করতে হবে।

ধাপ 1: প্রথমে www.mis.bhata.gov.bd/onlineapplication দেখুন
ধাপ 2: বয়স্ক ভাতা হিসাবে ভাতা প্রোগ্রাম নির্বাচন করুন।
ধাপ 3: তারপর ওয়েবসাইট আপনাকে একটি নতুন পৃষ্ঠা সরবরাহ করবে এবং একটি অ্যাপ্লিকেশন দেখাবে।
ধাপ 4: নতুন পৃষ্ঠায় প্রথমে আপনার পরিচয় যাচাই করতে আপনার NID এবং জন্ম তারিখ লিখুন।
ধাপ 5: তারপরে বৃদ্ধ ব্যক্তিদের প্রোগ্রাম অনুযায়ী বিশদ প্রদান করুন।
ধাপ 6: সমস্ত প্রয়োজনীয় তথ্য লিখুন যেমন নাম, শিক্ষার অবস্থা, পেশা, বৈবাহিক অবস্থা, পরিবারের সদস্য, কাজের ক্ষমতা ইত্যাদি।

ধাপ 7: বর্তমান এবং স্থায়ী ঠিকানা প্রদান করুন।
ধাপ 8: চুক্তি নম্বর এবং ইমেল লিখুন তারপর সংরক্ষণ করুন ক্লিক করুন।

Save-এ ক্লিক করার পর আপনাকে অনলাইন আবেদন জমা দিতে হবে এবং ভবিষ্যত ব্যবহারের জন্য পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করতে হবে। আপনার বার্ধক্য ভাতা অনলাইন আবেদন সম্পূর্ণ করতে সাবধানে সমস্ত পদক্ষেপ অনুসরণ করুন.

Untitled-1

বয়স্ক ভাতা কত টাকা পাওয়া যায়?

বয়স্ক ভাতার জন্য যারা আবেদন করেন এবং বয়স্কভাতা প্রাপ্ত হন তারা প্রতি মাসে ৫০০ টাকা করে পান। তবে এই টাকা প্রতিমাসে দেয়া হয় না। প্রতি ৩ মাস পর পর এই টাকা তারা পায়। বয়স্ক ভাতার আবেদনের সময় যে মোবাইল ব্যাংকিং নম্বর দেয়া হয় সে মোবাইল ব্যাংকিং নম্বরে বয়স্ক ভাতার টাকা ৩ মাস পর পর পাঠানো হয়। অর্থাৎ তিন মাসে মোট ১৫০০ টাকা প্রাপ্ত হয়। বাংলাদেশে প্রায় ৬০ লক্ষ মানুষ বর্তমানে বয়স্কভাতা 

বয়স্ক ভাতা কার্ড চেক

সমস্ত যোগ্য ব্যক্তি তাদের ভাতা কার্ড অনলাইনে চেক করতে পারেন। আপনার বার্ধক্য ভাতা কার্ড পরীক্ষা করতে প্রক্রিয়াটি অনুসরণ করুন:

1. প্রথমে সমাজসেবা বিভাগের ওয়েবসাইট www.bhata.gov.bd দেখুন

2. ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে আপনার অ্যাকাউন্টে লগ ইন করুন।

আপনার অ্যাকাউন্টে লগইন করার পরে আপনি আপনার ভাতার স্থিতি পরীক্ষা করতে পারবেন।

বয়স্ক ভাতার টাকা কিভাবে উত্তলন করবেন?

প্রতি ৩ মাস পরপর বয়স্কভাতার টাকা আপনার মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্টে প্রবেশ করে। তবে বয়স্কভাতার টাকা প্রবেশের কোনো ম্যাসেজ থাকেনা। আপনি মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্টের ব্যালান্স চেক করে অথবা নিকটস্থ মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্ট এর কাছে কিগে ব্যালান্স জেনে নিতে পারবেন । মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্ট এর কাছে গিয়েই আপনি টাকা উত্তোলন করে নিতে পারবেন।

শেষ কথা

বয়স্ক ভাতার আবেদন এর নিয়ম গুলো কিছুটা জটিল । তবে বুঝে আবেদন করতে তা অনেক সহজ মনে হবে। অনেকের বয়স্কভাতার আবেদন বিষয়ক নানা প্রশ্ন থাকে আবার অনেকে সঠিক ভাবে আবেদন করার পরেও টাকা পান না । বয়স্কভাতার আবেদন ২০২২ সম্পর্কে যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তাহলে এখানে প্রশ্ন করুন। এই নিবন্ধের কোনো অংশ বুঝতে না পারলে কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করুন, Result Insider BD টিম আপনার সমস্যার সমাধান করতে সবসময় চেষ্টা করে। এ বিষয়ে আরো তথ্য জানতে আমাদের ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করুন ও ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথেই থাকুন। সম্পূর্ণ আর্টিকেল পড়ার জন্য অনেক ধন্যবাদ।

 

আরো দেখুনঃ  এসএসসি ফলাফল ২০২২ সকল শিক্ষা বোর্ডের ফলাফল [সকল আপডেট]

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button