বিবিধ
ট্রেন্ডিং

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ এর মৃত্যুর কারন । রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ কিভাবে মারা গেলেন?

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ মারা গেছেন। ৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ তারিখে ৯৬ বছর বয়সে রানি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন । রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ এর ম্রিত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে বাকিংহাম প্যালেস। রানির মৃত্যুর পর থেকেই জনমনে একটি প্রশ্ন উঠেছে আর তা হলো রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ কিয়াভবে মারা গেলেন? এই নিবন্ধে আমরা রানির মৃত্যুর কারন জানাবো। তাই আপনি যদি রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ এর মৃত্যুর কারন জানতে আগ্রহী হন এই নিবন্ধটি আপনার জন্য। 

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ প্রায় ৭০ বছর সিংহাসনে ছিলেন । ব্রিটেনের আর কোনো রানি এতো দিন সিংহাসনে থাকতে পারেন নি। গত জুন মাসেই রানির সিংহাসনে আহরনের ৭০ বছর উতযাপন করেছে ব্রিটেন।

Getty-Images-170941684-9990863

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ হলো রাজা জর্জ সিক্স এর প্রথম সন্তান। রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ প্রথম সিংহাসনে আহরন করেন ১৯৫২ সালে তার পিতার মৃত্যুর পরে। রানির তোট চারজন সন্তান রয়েছে চার্লস, প্রিন্স অফ ওয়েলস; অ্যান, রাজকুমারী; প্রিন্স অ্যান্ড্রু, ইয়র্কের ডিউক; এবং প্রিন্স এডওয়ার্ড, বেসেক্সের আর্ল।

১৯৫৭ সালে অনুষ্ঠিত একটি ক্রিস্টমাস এর অনুষ্ঠানে তানি বলেন “আমি তোমাকে যুদ্ধে নিয়ে যেতে পারব না,”  তিনি আরো বলেন “আমি আপনাকে আইন দিই না বা বিচার করি না, তবে আমি অন্য কিছু করতে পারি: আমি এই পুরানো দ্বীপপুঞ্জের প্রতি এবং আমাদের ভ্রাতৃত্বের সমস্ত জাতির প্রতি আমার হৃদয় এবং আমার ভক্তি দিতে পারি।” রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ বলেছিলেন তিনি তার “হৃদয়” এবং “ভক্তি” সবটায় ব্রিটেনের জন্য উৎসর্গ করবেন তিনি করেছেনও তাই। কিন্তু কোনো মানুষ তো আর অমর নয়। ৯৬ বছর বয়সে পুরো পৃথিবীকে কাদিয়ে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ বিদায় নিলেন। 

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ তার কর্মের জন্য সবশ্যই সকলের কাছে অমর হয়ে থাকবেন । কিন্তু রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ মারা গেলেন কিভাবে?

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ কিভাবে মারা গেলেন?

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ এর মারা যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বাকিংহাম প্যালেস।  কিন্তু তবুও জনমনে তো বিভিন্ন প্রশ্ন আসে। রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ কিভাবে মারা গেলেন? তার শেষের দিন গুলো কেমন ছিলো। শেষের সময়টাই বা কিভাবে কেটেছে তার?

বাকিংহাম প্যালেস বলছে রানি “peacefully”  বা ” শান্তিতে মারা গেছেন। তাদের ভাষ্য অনুযায়ী রানি ৮ সেপ্টেম্বর বিকেলে স্কটল্যন্ডের বালমোরাল ক্যাসেলে শান্তিতে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যু কালে তার বয়স ছিলো ৯৬ বছর। 

 

বাকিংহাম প্যালেসের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “রানী আজ বিকেলে বালমোরালে শান্তিপূর্ণভাবে মারা যান।” “রাজা এবং রানী কনসোর্ট আজ সন্ধ্যায় বালমোরালে থাকবেন এবং আগামীকাল লন্ডনে ফিরে আসবেন।” বাকিংহাম প্যালেস ঘোষণা করার কয়েক ঘন্টা পরে রানীর মৃত্যু ঘটেছিল যে তাকে তার ডাক্তারদের “উদ্বেগের” কারণে “চিকিৎসা তত্ত্বাবধানে” রাখা হয়েছিল। “আজ সকালে আরও মূল্যায়নের পরে, রাণীর ডাক্তাররা মহামান্যের স্বাস্থ্যের জন্য উদ্বিগ্ন এবং তাকে চিকিৎসা তত্ত্বাবধানে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন,” বাকিংহাম প্যালেস সে সময় বলেছিল। “রানি আরামদায়ক এবং বালমোরালে থাকেন।” বিবৃতিটি অব্যাহত ছিল, “তাদের রয়্যাল হাইনেস দ্য প্রিন্স অফ ওয়েলস এবং ডাচেস অফ কর্নওয়াল বালমোরালে ভ্রমণ করেছেন।”

images

রানির মৃত্যুর পর চার্লস নতুন রাজা হিসেবে ঘোষিত হন । নতুন রাজা চার্লস রানির জ্যৈষ্ঠ পুত্র। তিনি The Royal Family টুইটার একাউন্টের মাধ্যমে তার বিবৃতি জানান। 

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “আমার প্রিয় মা, রাণীর মৃত্যু আমার এবং আমার পরিবারের সকল সদস্যের জন্য সবচেয়ে বড় দুঃখের একটি মুহূর্ত।” “আমরা একজন লালিত সার্বভৌম এবং অত্যন্ত প্রিয় মায়ের মৃত্যুতে গভীরভাবে শোকাহত। আমি জানি তার ক্ষতি সারা দেশে, রাজ্য এবং কমনওয়েলথ এবং সারা বিশ্বের অসংখ্য মানুষ গভীরভাবে অনুভব করবে। শোক ও পরিবর্তনের এই সময়কালে, আমার পরিবার এবং আমি যে সম্মান এবং গভীর স্নেহের উপর রানীকে এত ব্যাপকভাবে রাখা হয়েছিল সে সম্পর্কে আমাদের জ্ঞান দ্বারা সান্ত্বনা এবং টেকসই হব।”

“The death of my beloved Mother, Her Majesty The Queen, is a moment of the greatest sadness for me and all members of my family,” the statement read. “We mourn profoundly the passing of a cherished sovereign, and much-loved mother. I know her loss will be deeply felt throughout the country, the Realms and the Commonwealth, and by countless people around the world. During this period of mourning and change, my family and I will be comforted and sustained by our knowledge of the respect and deep affection on which The Queen was so widely held.”

 

 

রানির মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ার পর থেকেই ব্রিটেনের রাজ পরিবারের সদস্যগন ছুটে আসেন। 

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ এর মৃত্যুর কারন 

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ এর মৃত্যুর কারন এখনো পর্যন্ত তার পরিবার থেকে জানানো হয়নি সেখানে শুধু রানি শান্তিতে মৃত্যুবরণ করেছেন সে কথা উল্ল্যেখ করেছিলো বাকিং হাম প্যালেস। 

৮ সেপ্টেম্বর সকাল থেকেই রানিকে ডাক্তার এর তত্ত্বাবধানে রাখা হয়েছেলো এবং সে সময় বাকিংহাম প্যালেস জানায় রানি বালমোরাল প্যালেসে আরামে থাকেন। ২০২১ সালের অক্টোবর মাসে রানি নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডের সফর বাতিল করেন। রানি এটি করেছিলেন ডাক্তারের পরামর্শে । এর পরে অবশ্য বাকিংহাম প্যালেস জানিয়েছিলো রানি এখন সুস্থ আছেন। গতবছর রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ কোভিড ১৯ এও আক্রান্ত হয়েছিলেন । এর আগে গুজব ছিলো যে রানি হয়তো ৯৫ বছর বয়সে কোভিড ১৯ আক্রান্স হয়ে মারা গেছেন। 

 

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ কিভাবে মারা গেলেন সে বিষয়ে বিভিন্ন সুত্র বিভিন্ন তথ্য জানাচ্ছে তবে তার কোনোটিই হয়তো সত্য নয়। রানির সঠিক মৃত্যুর কারন জানতে আপনাকে আরো কিছুক্ষন অপেক্ষা করতে হতে পারে। তবে আপাত দৃষ্টিতে মনে হয়েছে রানির এই মৃত্যু স্বাভাবিক । The Royal Family বা বাকিংহাম প্যালেস এ সম্পর্কে কিছু জানালে তা এই অংশে আপডেট করা হবে। 

শেষ কথা

আশা করছি রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ কিভাবে মারা গেলেন তা সম্পর্কে আপনি জানতে পেরেছেন। রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ এর মৃত্যু সম্পর্কে যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তাহলে এখানে প্রশ্ন করুন। এই নিবন্ধের কোনো অংশ বুঝতে না পারলে কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করুন, Result Insider BD টিম আপনার সমস্যার সমাধান করতে সবসময় চেষ্টা করে। এ বিষয়ে আরো তথ্য জানতে আমাদের ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করুন ও ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথেই থাকুন। সম্পূর্ণ আর্টিকেল পড়ার জন্য অনেক ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button